/
/
/
শেরপুরে অন্তঃসত্ত্বা সতিনকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ড, ১৪ বছর পর গ্রেফতার
শেরপুরে অন্তঃসত্ত্বা সতিনকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ড, ১৪ বছর পর গ্রেফতার
15 views
Relaks Limited
আপলোড সময় : 7 ঘন্টা আগে
শেরপুরে অন্তঃসত্ত্বা সতিনকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ড, ১৪ বছর পর গ্রেফতার
Print Friendly, PDF & Email

শেরপুরের নকলা উপজেলায় চাঞ্চল্যকর অন্তঃসত্ত্বা সতিনকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত আসামি ১৪ বছর পলাতক থাকার পর আসামি আন্জুমানারা বেগমকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১৪। বুধবার রাতে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার চরশসা জয় বাংলা বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আঞ্জুমানারা বেগম নকলা উপজেলার বাছুর আলগা গ্রামের মৃত নূরুল আমিন বৈঠার স্ত্রী। র‍্যাব-১৪ জামালপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর আবরার ফয়সাল সাদী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শেরপুরের নকলা উপজেলার বাছুরআলগা গ্রামের নূরুল আমিন বৈঠা তাঁর অন্তঃসত্ত্বা প্রথম স্ত্রীকে রেখে আন্জুমানারা বেগমকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। এরপর থেকেই তাদের মধ্যে কলহ সৃষ্টি হয়। এরই জেরে আন্জুমানারা বেগমের (শেফালী) প্ররোচনায় ও সহযোগিতায় নূরুল আমিন বৈঠা বিগত ২০০৫ সালের ৫ এপ্রিল তার অন্তঃসত্ত্বা প্রথম স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা করেন। এ ঘটনার পর থেকেই স্বামী–স্ত্রী দুজনেই পালিয়ে যান। এরপর নূরুল আমিন বৈঠা মারা যান।

পরবর্তীতে, আদালত সাক্ষ্য–প্রমাণ শেষে বাদীর আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় ২০১০ সালের ১৯ এপ্রিল আসামি আন্জুমানারা বেগমের অনুপস্থিতিতে শেরপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আঞ্জুমানারাকে মৃত্যুদণ্ড দেন। এরপর গতকাল বুধবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ময়মনসিংহের চরশসা জয় বাংলা বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে আন্জুমানারা বেগমকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামিকে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নকলা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

নিউজটি করেছেন : এফ এম সিফাত হাসান, শেরপুর প্রতিনিধি
{{ reviewsTotal }}{{ options.labels.singularReviewCountLabel }}
{{ reviewsTotal }}{{ options.labels.pluralReviewCountLabel }}
{{ options.labels.newReviewButton }}
{{ userData.canReview.message }}

এ জাতীয় আরো খবর

বার্সাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের স্বপ্নের কথা বললেন এমবাপ্পে
বার্সাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের স্বপ্নের কথা ...
মৌলভীবাজারে তিন উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিলেন ৩৭জন প্রার্থী
মৌলভীবাজারে তিন উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিলেন ৩৭জন প্রা...
যশোর শার্শার বেলতলা বাজারে গুটি আম বেচাকেনা শুরু
যশোর শার্শার বেলতলা বাজারে গুটি আম বেচাকেনা শুরু
৫ দিনের ছুটি শেষে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরু বেনাপোল বন্দরে
৫ দিনের ছুটি শেষে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরু বে...
গাজীপুরের কালিয়াকৈর এ মোটরসাইকেলে জড়ে গেলে তাজা ২ প্রাণ
গাজীপুরের কালিয়াকৈর এ মোটরসাইকেলে জড়ে গেলে তাজা ২...
নানান আয়োজনে শুভ নববর্ষ ১৪৩১ পহেলা বৈশাখ উদযাপনে গুইমারা রিজিয়ন
নানান আয়োজনে শুভ নববর্ষ ১৪৩১ পহেলা বৈশাখ উদযাপনে গ...
গুইমারায় শুভ নববর্ষ ১৪৩১ উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রা
গুইমারায় শুভ নববর্ষ ১৪৩১ উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রা
আরও ৩ দেশ থেকে একযোগে ইসরাইলে হামলা
আরও ৩ দেশ থেকে একযোগে ইসরাইলে হামলা
সালমানের বাড়ির সামনে গুলি ছুঁড়েছে দুর্বৃত্তরা!
সালমানের বাড়ির সামনে গুলি ছুঁড়েছে দুর্বৃত্তরা!
যুবকের পায়ুপথ থেকে বের করা হলো ৬ ইঞ্চি ডাব
যুবকের পায়ুপথ থেকে বের করা হলো ৬ ইঞ্চি ডাব
বার্সাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের স্বপ্নের কথা বললেন এমবাপ্পে
বার্সাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের স্বপ্নের কথা ...
মৌলভীবাজারে তিন উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিলেন ৩৭জন প্রার্থী
মৌলভীবাজারে তিন উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিলেন ৩৭জন প্রা...
যশোর শার্শার বেলতলা বাজারে গুটি আম বেচাকেনা শুরু
যশোর শার্শার বেলতলা বাজারে গুটি আম বেচাকেনা শুরু
৫ দিনের ছুটি শেষে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরু বেনাপোল বন্দরে
৫ দিনের ছুটি শেষে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরু বে...
গাজীপুরের কালিয়াকৈর এ মোটরসাইকেলে জড়ে গেলে তাজা ২ প্রাণ
গাজীপুরের কালিয়াকৈর এ মোটরসাইকেলে জড়ে গেলে তাজা ২...
নানান আয়োজনে শুভ নববর্ষ ১৪৩১ পহেলা বৈশাখ উদযাপনে গুইমারা রিজিয়ন
নানান আয়োজনে শুভ নববর্ষ ১৪৩১ পহেলা বৈশাখ উদযাপনে গ...

Log in

Not registered? Join us FREE